1. me@dailyjagrotodesh.com : দৈনিক জাগ্রতদেশ : dailyjagrotodesh.com dailyjagrotodesh.com
  2. dailyjagrotodesh@gmail.com : দৈনিক জাগ্রতদেশ :
শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ১২:০১ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
জগন্নাথপুরে ঝুকিতে জগদীশপুর গ্রামের খালের সেতু ঘটতে পারে দুর্ঘটনা দুুমকিতে ইউপি ভবন নির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন।  মসজিদ প্লাবিত হওয়ায় নামাজ আদায় করতে পারছেননা মুসল্লীরা জগন্নাথপুর থানা পুলিশের উদ্যোগে ঈদ উল আযহা উপলক্ষে ঈদ সামগ্রী বিতরন বিএনপিতে নতুন পদ পেলেন ৩৯ জন দুমকিতে ঈদ উল আযহা ঘনিয়ে আসায় জমতে,শুরু করেছে পশুর হাট বাড়ছে ক্রেতা সমাগম। ঈদের দিন ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে জমতে শুরু করেছে পশুর হাট বাড়ছে ক্রেতা সমাগম জগন্নাথপুর সরকারী বালিকা বিদ্যালয়ের পুরাতন মালামাল গোপনে বিক্রি, প্রশাসনের হস্তক্ষেপ  বজ্রপাত আতঙ্কে গ্রামীন জনজীবনে ঝুকি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন দুমকিতে কাওসার, আমিন হাওলাদার কাপ পিরিচ’র বিজয়,, অবাধ, সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন।
বিঙ্গাপন:
তরুণ উদ্যোক্তাদের জন্য সুখবর, সারাদেশে ডিলার নিয়োগ দিচ্ছে মিয়া কেমিক্যাল কোম্পানি!!! সারাদেশের প্রতিটি জেলা উপজেলায় শূন্যস্থানে সংবাদ প্রতিনিধি সাংবাদিক নিয়োগ চলছে আগ্রহীরা পোস্টের নাম উল্লেখ করে সিভি পাঠান dailyjagrotodesh@gmail.com

আইন অমান্য করে অবাধে চলছে অতিথি পাখি শিকার

  • প্রকাশিত: সোমবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২৩

মোঃ মুকিম উদ্দিন,জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ  সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরসহ সারা দেশে শীতের আমেজ চলছে। ঘন কুয়াশায় ঢেকে যাচ্ছে নদী-নালা ও হাওরের জনপদ। শীতের সঙ্গে কাঁধ মিলিয়ে আসতে শুরু করেছে অতিথি পাখি।

 

বিকেলে পাখির ঝাঁকের নয়নাভিরাম দৃশ্য বাড়িয়ে দিচ্ছে সৌন্দর্য। প্রাণভরে উপভোগ করছেন অবকাশকালীন মানুষেরা। স্বচ্ছ পানির ঢেউয়ে নীলাভ আকাশ ভেসে উঠলে পাওয়া যায় হাওরের দৃশ্য, পাখির ওড়াউড়ি আর কলতানে অন্যরকম আবেশ ছড়িয়ে দেয়। গোধূলিলগ্নে নীড়ে ফেরা পাখিদের গুঞ্জন আরো বেশি আকর্ষণীয়।

 

তাইতো শীতের মৌসুমে অতিথি পাখির আনাগোনাও শুরু। সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরের নদী-নালা ও খাল-বিলগুলো এখন অতিথি পাখির কলকাকলীতে মুখর। চোরা শিকারীরাও তৎপর। চলছে এ পাখি শিকারের মহোৎসব।

 

নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে জাল কিংবা ফাঁদ পেতে অবাধে শিকার করা হচ্ছে অতিথি পাখি। এতে পরিবেশের ওপর বিরূপ প্রভাবসহ অতিথি পাখির আগমন দিন দিন কমে যাচ্ছে। প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে এক শ্রেণীর অসাধু পাখি শিকারির ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

 

জানা গেছে, শীত মৌসুম শুরুর সঙ্গে সঙ্গে প্রতি বছর হাজার হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে সুদূর সাইবেরিয়াসহ বিভিন্ন দেশ থেকে দেশের অনেক অঞ্চলে বিভিন্ন প্রজাতির অতিথি পাখি আসে। কিন্তু সরকারি নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করে জগন্নাথপুরের বিভিন্ন এলাকায় নির্বিচারে অতিথি পাখি নিধন চলছে। অসাধু পাখি শিকারিরা রাতের বেলায় কৌশলে খাল, বিল, হাওর ও জলাশয়ে ফাঁদ, জাল, খাঁচা এবং চেতনা নাশক ওষুধ ব্যবহার করে অতিথি পাখি শিকার করছে।

 

একাধিক সূত্র জানায়, অল্প পানিতে খাবার সংগ্রহের জন্য এ বছরও জগন্নাথপুরের বিভিন্ন বিলে-ঝিলে দেশি ও অতিথি পাখি এসেছে। সেইসঙ্গে প্রচুর মাছও দেখা যাচ্ছে। ফলে ঝাঁকে ঝাঁকে চখাচখি, চেগা, পানকৌড়ি, বক, হরিয়াল, হারগিলা, বালিহাঁস, লালস্বর, কাঁদোখোচা, ডাহুক, শামুখখোল, হটটিটিসহ বিভিন্ন প্রজাতির অতিথি পাখি বসতে শুরু করেছে। আর এ সুযোগে এক শ্রেণীর সৌখিন ও পেশাদার পাখি শিকারি বিষটোপ, কারেন্ট জাল ও ফাঁদ পেতে প্রতিনিয়ত পাখি শিকার করছে। প্রকাশ্যে এসব পাখি বিক্রি হচ্ছে বিভিন্ন এলাকায় ও বাজারে।

 

নাম না প্রকাশ করার শর্তে কয়েকজন পেশাদার পাখি শিকারি বলেন, বাজারে পাখির প্রচুর চাহিদা রয়েছে। তাই কোনোমতে ধরতে পারলেই বিক্রি করতে সমস্যা হয় না। প্রতি জোড়া পাখি প্রজাতিভেদে ৫০০ টাকা থেকে ৭০০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি করা হয়। ফলে বেশি লাভের আশায় অনেকেই মাছ ধরা বাদ দিয়ে পাখি শিকার করছেন।

 

পরিবেশ বিশেষজ্ঞদের মতে, অতিথি পাখি আমাদের উপকারী প্রাণী। বিশেষ করে পরিবেশ রক্ষার ক্ষেত্রে পাখির বড় ভূমিকা রয়েছে।

 

বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ কর্মকর্তা বলেন, অতিথি পাখি শিকার কিংবা হত্যা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। আইন অমান্য করে পাখি শিকার করলে বণ্যপ্রাণি সংরক্ষণ আইনের ৩৮ ধারায় (১/২) ১ বছরের কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে। একই অপরাধ দ্বিতীয়বার করলে দণ্ডের মেয়াদ দ্বিগুণ হবে।সচেতন হলের ধারনা অতিথি পাখি শিকার বন্ধে সামাজিক প্রতিরোধ এবং সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক জাগ্রতদেশ ২০২৩-২০২৪
Theme Customized By BreakingNews